১০ বছর আগের একটা শীতের সন্ধ্যা । আমি তখন ক্লাস ৯ এ পড়ি । বাবা , মা আর আমার ক্লাস ১১ এ পড়া দিদি টিভি তে ইংলিশ মুভি দেখছিল।  বাবা আর মা বসে ছিল খাটে ।  দিদি একটা চেয়ারে ।  আমি দিদির পায়ের কাছে মেঝেতে শুয়েছিলাম । দিদির পরনে ছিল ছাই রঙের জ্যাকেট আর কালো প্যান্ট । পায়ে নীল চটি । সবাই মন দিয়ে সিনেমা দেখছিল ।

আমি ইংলিশ ভাল বুঝতাম না বলে বারবার প্রশ্ন করে ওদের বিরক্ত করছিলাম । দিদি রেগে গিএ শেষে বললো, পড়াশোনা না করলে ইংলিশ বুঝবি কি করে ? তোকে সিনেমা দেখতে হবে না । পড়াশোনা কর গিয়ে । আমি তখন বললাম, “ সরি দিদি , ভুল হয়ে গেছে । আর প্রশ্ন করব না “।
দিদি মুচকি হেসে বলল  ”আবার প্রশ্ন করলে তোকে কিভাবে চুপ করাতে হবে আমার জানা আছে ।

একটু পরে পুরন কথা ভুলে আমি আবার প্রশ্ন করে ফেললাম ।  আমি উত্তরের জন্য দিদির দিকে তাকিয়েছিলাম । দিদি আমার দিকে তাকিয়ে হেসে বলল “ তোকে কিভাবে থামাতে হয় আমার জানা আছে।

এই বলে দিদি অর চটি পরা ডান পা টা বাবা মায়ের সাম্নেই আমার মুখের ওপর তুলে দিয়ে হেসে বলল, “ দেখি , এবার তুই কিভাবে কথা বলিস। “  বাবা মা দিদিকে কিছুই বলল না । মন দিয়ে এভাবে সিনেমা দেখে যেতে লাগলো যেন কিছুই হয়নি । দিদি মিনিট দুয়েক পরে চটি পরা বাঁ পা টাও আমার মুখের ওপর তুলে দিয়ে চটি পরা ডান পা দিয়ে আমার মুখের ওপরে একটা আলতো লাথি মেরে বলল, “ চুপচাপ শুয়ে না থেকে বরং আমার পা দুটো একটু টিপে দে ।

বাবা মায়ের সামনেই দিদি আমার মুখের ওপর চটি পরা পা রেখে বসে আমার মুখে লাথি মেরে আমাকে পা টিপতে হুকুম করছে ! এতদিন এভাবে দিদির সেবা শুধু স্বপ্নেই করেছি ! কেন জানিনা , দিদির সেবা করছি এই চিন্তা আমাকে অদ্ভুত আনন্দ দেয় চিরকাল । আর আজ আমার সেই স্বপ্ন সত্যি হতে চলেছে !

আমি হাত বারিয়ে দিদির পা দুটো টিপতে লাগলাম । আর দিদি আমার মুখে অর চটির তলা দুটো আসতে আসতে ঘষতে লাগ্ল । আমার ঠোঁট দুটোকে ডান চটির তলায়, আর কপালটা বাঁ চটির তলায় ঘষে খেলতে লাগ্ল দিদি। আমি দিদির পা দুটো পালা করে টিপতে লাগলাম। আর মাঝে মাঝে আলতো চুম্বন করতে লাগলাম দিদির ডান চটির তলায় ।

একটু পরে অ্যাড দিল টিভি তে । মা দিদিকে বলল, “ তুই ভাইয়ের মুখে চটি পরা পা রেখে বসে অকে দিয়ে পা টেপাচ্ছিস তাও ও কিছু বলছে না ! কি আশ্চর্য !

দিদি আমার মুখে ডান পা দিয়ে একটা লাথি মেরে বলল “ ভাইেয়ের মুখে দিদি পা রেখেছে এটা তো ভাইয়ের কাছে গর্বের ব্যাপার । দেখবে ও আমাকে কত শ্রদ্ধা করে ? এই বলে দিদি ওর চটি পরা ডান পা টা আমার মুখের একটু ওপরে ধরে বলল , আমার চটির তলায় চুমু খা তো ভাই । আমি একবার বাবা মায়ের দিকে দেখলাম । ওরা আগ্রহ ভরে দেখছে আমি দিদির কথা শুনি কিনা ।  আমি তারপর দিদির মুখের দিকে তাকালাম । ফর্সা সুন্দরী দিদি আমার মুখের দিকে তাকিয়ে অপেক্ষা করছে কখন আমি ওর চটি পরা পায়ের তলায় চুমু খাব আমাদের বাবা মায়ের সামনে ।  আমি দেরি করলাম না । আমার মাথাটা তুলে ঠোঁটজোড়া ছোঁয়ালাম দিদির চটির তলায় । গাঢ় চুম্বন করলাম দিদির চটির তলায় । পরপর তিনবার । দিদি ডান পা টা আমার গলার ওপর রেখে বাঁ পাটা আমার ঠোঁটের ওপর ধরল । আমি একিরকম আবেগের সঙ্গে দিদির বাঁ চটির তলাতেও চুম্বন করলাম । পরপর ৩ বার । দিদি চটি পরা পা আমার চুলের ওপর বুলিয়ে আমাকে আদর করতে করতে বলল “ এবার ভাল ভাইয়ের মত দিদির চটির তলা মোছার জন্য জিভটা বার করে দে তো । আমি মন্ত্রমুগ্ধ পুতুলের মত আমার প্রভু দিদির আদেশ পালন করলাম। দিদির চটির তলা মোছার জন্য যতটা সম্ভব বার করে দিলাম আমার জিভটা । আর দিদি বাবা মায়ের সামনে ওর চটি পরা ডান পায়ের তলাটা আমার জিভের ওপরে নামিয়ে দিল। আমার জিভের ওপর ঘষে পরিস্কার করতে লাগল নিজের চটির তলা । আমি নিজের বাবা মায়ের সামনে নিজের দিদির চটির তলার ময়লা গিলে খেতে লাগলাম পরম ভক্তিতে ।